Translate in Your Language

ফ্রি সফটওয়্যার কোথায় পাব? | Where to download free software??

 

ফ্রি সফটওয়্যার কোথায় পাব-Where to download free software??

ফ্রি সফটওয়্যার কোথায় পাব? | Where to download free software?? | Download Paid Software for Free! | Shemanto sharkar


কম্পিউটারে কাজ মানেই সফটওয়্যার ওপেন করো।স্কিল ডেভেলপমেন্ট হোক বা ফ্রিল্যান্সিং করে আর্থিক ভাবে সাবলম্বি হওয়া,শেখা চাই সফটওয়্যার।কিন্তুু শিখতে চাইলেই তো হবে না,প্র‍য়োজন সফটওয়্যার।

কিন্তুু বেশির ভাগ সফটওয়্যার হলো পেইড অর্থ্যাৎ কম্পানি থেকে লাইসেন্স না কিনে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন না।তবে বাংলাদেশের মতো দেশে বাস্তবতা ততোটাও অনুকূল নয়।


প্রথমতো,সফটওয়্যারগুলোর দাম অনেক,যা মধ্যবিত্ত শিক্ষার্থীদের পক্ষে ব্যয়বহুল।অন্যদিকে এগুলো কিনতে প্র‍য়োজন হয় মাস্টারকার্ডের যা অনেকে কাছেই নেই।


তাই বলে কি থেমে থাকা যাবে? না! আমাদের শিখতে হবে,শেখাতে হবে।কারণ আমাদের স্কিলগুলোই পারে  অর্থনৈতিক স্বাধীনতার পাশাপাশি আমাদের আরো কনফিডেন্স করে তুলতে।


আমি আপনাকে দুইটি পদ্ধতির কথা বলব যার মাধ্যমে আপনি প্রায় সব সফটওয়্যার ফ্রিতে ডাউনলোড করতে পারবেন।


১. www.getintopc.com এই ওয়েবসাইটটি ব্যক্তিগতভাবে আমার প্রথম চয়েজ কোন সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে।পৃথিবীর প্রায় সব সফটওয়্যার এর লেটেস্ট ভার্সন আপনি পেয়ে যাবেন এই ওয়েবসাইটটিতে,তাও আবার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে লাইফ টাইম ইউজ করার জন্য!!

যে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করতে চান সেটি ওয়েবসাইটের সার্চ অপশনে গিয়ে সার্চ করুন। সফটওয়ারটি লেটেস্ট ভার্সন সহ অনেকগুলো ভার্সন আপনাকে শো করবে ওয়েবসাইটটি।যে কোন লিংক ওপেন করলে আপনি মূলত দুইটি জিনিস ডাউনলোড করার অপশন দেখতে পাবেন একটি হচ্ছে মূল সফটওয়্যারটি এবং অন্যটি হচ্ছে ইন্সট্রাকশন ভিডিও।

মূল সফটওয়্যারটি ক্র্যাক করা থাকে না।আপনাকে ইন্সট্রাকশন ভিডিও দেখে ঠিক সেই ভাবেই আপনাকে ওই সফটওয়্যারটিকে ক্র্যাক করে নিতে হবে। এখন সাধারণ সফটওয়্যার এর চাইতে ক্র্যাক ভার্সন ডাউনলোড করা অনেকটাই কঠিন এবং ব্যতিক্রম।ইনস্টলেশন ভিডিওতে যেভাবে দেখিয়েছে ঠিক সেইভাবে কাজ না করলে আপনার সফটওয়্যারটি শেষ পর্যন্ত আর ক্র্যাক হবে না।

সফটওয়্যারটি ক্র্যাক করতে আপনাকে প্রথমেই ডাউনলোড করার পর ইন্টারনেট কানেকশন অফ করে দিতে হবে এবং কম্পিউটারের সিকিউরিটি অফ করে নিতে হবে।ভয় পাওয়ার কিছু নেই,আপনার কম্পিউটারে কোন ক্ষতি হবে না। তারপর ভিডিওর মতো করে ক্র্যাক ফাইলটি সফটওয়্যারএর ফাইলে আপলোড করে দিতে হবে।একবার ক্র্যাক হয়ে গেলে সফটওয়্যারটি লাইফটাইম আপনি ইউজ করতে পারবেন।সম্পূর্ণ কাজ শেষ হওয়ার পর কম্পিউটারের সিকিউরিটি অন করে দিতে ভুলবেন না।


২.টরেন্ট এর মাধ্যমে।টরেন্ট হচ্ছে এমন একটি সিস্টেম বা সফটওয়্যার যার মাধ্যমে অনেক জন ইউজার একজনের কম্পিউটারের সাথে আরেকজন সংযুক্ত থাকতে পারে  এবং অনেক জন একই সাথে অন্যের কাছে থাকা ফাইল ডাউনলোড করতে পারে।

আমরা যখন কোন কিছু ডাউনলোড করি তা সাধারণত কোন একটা নির্দিস্ট সার্ভার কম্পিউটারে আপলোড করা থাকে এবং আমাদের ব্রাউজার সফটওয়্যার এর রিকুয়েস্টে ঐ সার্ভার সাড়া দেয় এবং আমরা ডাউনলোড করতে পারি । কিন্তু টরেন্টের বেলায় কোন নির্দিস্ট সার্ভার থাকে না । কোন নির্দিস্ট সার্ভারে কোন কিছু আপলোডও করা হয় না । তাহলে প্রশ্ন আসতে পারি ডাউনলোড করা যায় কিভাবে ? আপনি যদি কোন ফাইল টরেন্টে আপলোড করতে চান সেটা বিটটরেন্ট হোক আর ইউটরেন্টেই হোক আপনাকে ঐ ফাইলটার একটা টরেন্ট তৈরি করে রাখতে হবে । তারপর এই টরেন্ট ফাইলটা যদি কেউ ডাউনলোড করতে চায় তাহলে ফাইলটা ধীরে ধীরে আপনার কম্পিউটার থেকে ঐ ইউজারের কম্পিউটারে ট্রান্সফার হতে থাকবে । এখানে আপনার কম্পিউটারটি সার্ভার হিসেবে কাজ করে ।

যেকোন টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে যেকোন একটি টরেন্ট ক্লায়েন্ট সফটওয়্যার ব্যাবহার করতে হবে । দুইটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার হল uTorrent বা মাইক্রোটরেন্ট এবং BitTorrent. যেকোন একটা ইউজ করতে পারেন । যেকোন টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করার জন্য উপরের যেকোন একটা সফটওয়্যার ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিবেন । তারপর আপনার ব্রাউজার দিয়ে যেকোন একটা টরেন্ট ওয়েবসাইটে যাবেন । সেখান থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোন একটা টরেন্ট ফাইল সিলেক্ট করে Get Torrent এ ক্লিক করলে ফাইলটি uTorrent বা BitTorrent দিয়ে ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে ।


এই দুই পদ্ধতির মাঝে টরেন্ট ডাউনলোড করা অনেকটা বেশি জটিল এবং সময় সাপেক্ষ।তার চাইতে প্রথম পদ্ধতিটি অনেক বেশি সহজ।

যারা দীরঘদিন ধরে খুঁজছেন কোনো সফটওয়্যার কিভাবে ডাউনলোড করব তারা আজই উপরের যেকোন একটি পদ্ধতি ব্যবহার করে আপনার পছন্দের সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ফেলুন আর সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন আমার ইমেল-লিস্টে যাতে আপনার কাছে পরবর্তী পোষ্টগুলো পৌছে দিতে পারি।


আপনার যদি মনে হয় আপনার কোনো বন্ধু এ পোস্টটি থেকে সাহায্য পেতে পারে তাদের সাথে অবশ্যই এই পোস্টের লিঙ্কটি শেয়ার করুন।


কোন প্রশ্ন বা অন্য কোন আল্টারনেটিভ আপনার জানা থাকলে কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিন,আমি চেষ্টা করব উত্তর দিতে। Happy learning!!

🚩আমার লাইফের রিয়েল-টাইম আপডেট পেতে ফলো করতে পারো ইন্সট্রাগ্রামে: https://www.instagram.com/shemanto_sharkar/ 🤝Support my blog: ব্লগের কন্টেন্ট এবং টেলিগ্রাম চ্যানেল যদি আপনার লাইফে কিছুটা হলেও ইম্পেক্ট ফেলে থাকে তবে আপনি চাইলে এক কাপ কফি কিনে আমাকে সাহায্য করতে পারেন,এতে করে আমি আমার ব্লগ এড ফ্রি ভাবে চালিয়ে যেতে পারবো-


Post a Comment

2 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.
  1. Replies
    1. ধন্যবাদ পোস্টটি পড়ার জন্য,আশা করি এটি আপনার কাজে আসবে❤

      Delete

Top Post Ad

Below Post Ad

বিশেষ ছাড়ে ডিজিটাল প্রোডাক্ট কিনতে এখানে ক্লিক করুন!!

Shemanto Sharkar