Translate in Your Language

ME (CUET) Subject Review: 𝗠𝗘𝗖𝗛𝗔𝗡𝗜𝗖𝗔𝗟 𝗘𝗡𝗚𝗜𝗡𝗘𝗘𝗥𝗜𝗡𝗚

 𝗦𝘂𝗯𝗷𝗲𝗰𝘁 𝗥𝗲𝘃𝗶𝗲𝘄 :-


ভর্তিপরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ার পরপরই বেছে নিতে হয় পছন্দের সাব্জেক্ট। তুমি যেই সাব্জেক্টই চান্স পাওনা কেন, সেই সাব্জেক্ট সম্পর্কে থাকতে হবে স্বচ্ছ ধারণা। সেই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই আমি আমার অধ্যয়নরত বিষয়টির রিভিউ দিচ্ছি।
যারা এই সাব্জেক্টটি ফার্স্ট চয়েজ দিবা বা সিরিয়াল অনুসারে যাদের এই সাব্জেক্টটি আসবে, তাদের সকলের জন্য এই পোস্টটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই পুরো রিভিউ টি মনোযোগ দিয়ে পড়ার অনুরোধ রইল
>>>#𝗠𝗘𝗖𝗛𝗔𝗡𝗜𝗖𝗔𝗟_𝗘𝗡𝗚𝗜𝗡𝗘𝗘𝗥𝗜𝗡𝗚<<<
𝐓𝐨𝐭𝐚𝐥 𝐒𝐞𝐚𝐭𝐬 » 460
𝙲𝚄𝙴𝚃=180
𝚁𝚄𝙴𝚃=180
𝙺𝚄𝙴𝚃=120
মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বা যন্ত্রকৌশল হল পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম ও বিস্তৃত ইঞ্জিনিয়ারিং ক্ষেত্র। মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংকে বলা হয় মাদার অফ ইঞ্জিনিয়ারিং। যন্ত্রকৌশল প্রকৌশলের এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যাতে যান্ত্রিক ব্যবস্থাসমূহ রক্ষণাবেক্ষণ, নকশা, উৎপাদন এবং বিশ্লেষণের জন্য পদার্থবিজ্ঞানের সূত্রগুলো ব্যবহার করা হয়। বলবিজ্ঞান, গতিবিজ্ঞান, তাপগতিবিজ্ঞান এবং শক্তি সম্বন্ধে একটি সুস্পষ্ট জ্ঞান এই প্রকৌশল অধ্যয়নের জন্য প্রয়োজনীয়। যন্ত্র প্রকৌশলীরা মোটরগাড়ি, বিমান, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা, শিল্প কারখানার যন্ত্রপাতি নির্মাণ এবং চিকিৎসা বিজ্ঞানের যন্ত্রাদি নির্মাণে এই জ্ঞান ব্যবহার করেন।
তো এখন আসি একজন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের কাজটা কী?
মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়াররা ছোট পার্টস থেকে শুরু করে অনেক বড় বড় মেশিন, যন্ত্রপাতি বা যানবাহন ডিজাইন ও সেই পণ্য উৎপাদনের পুরো পদ্ধতিকে অধিক কর্মক্ষম করার জন্য কাজ করে থাকেন। তারা একটা পণ্য তৈরির সকল পর্যায়ে (গবেষণা,নকশা, উতপাদন, ইনস্টলেশন এবং চূড়ান্ত চালু) কাজ করতে পারেন। তাদের কাজগুলো সাধারণত নিম্নরূপ:
★আর্থিকভাবে সাশ্রয়ী, নিরাপদ ও টেকশই সরঞ্জাম ডিজাইন ও তৈরি করা।
★অন্যান্য শ্রেণীর ইঞ্জিনিয়ারদের সাথে আলোচনা করে কোন প্রজেক্টের জন্য প্রয়োজনীয় দিকগুলো বাছাই করা।
★তাত্বিক ডিজাইনের কার্যকারিতা জানার জন্য সিমুলেশন করা ও সেই অনুয়াযী ডিজাইনে প্রয়োজনীয় পরিবর্তন আনা।
★পণ্য সম্পর্কিত সমস্যা সমাধানের জন্য উৎপাদন বিভাগের লোকজন, সরবরাহকারী এবং গ্রাহকদের সঙ্গে আলোচনা করা।
★প্রকৌশল ও অন্যান্য খাতের পেশাদারদের সঙ্গে কাজ করা।
★যন্ত্রপাতির মেইনটেনেন্সের দায়িত্ব পালন করা
★চাকরির সুযোগঃ- সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে, তুমি মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়লে CSE,EEE,IPE,Chemical,PME রিলেটেড অনেক জবও করতে পারবে কারণ মেকানিকালে তুমি পাচ্ছ নিম্নলিখিত বিষয়গুলোর উপর রিসার্চ এবং হায়ার স্টাডিজ এর সুযোগ
√ Acoustical engineering
√ Aerospace engineering
√ Automotive engineering
√ Biomechanics
√ Biomedical Engineering
√ Computational Fluid Mechanics
√ Fluid Mechanics
√ Finite Element Analysis
√ Friction Stir Welding
√ Green & Sustainable Technologies
√ HVAC
√ Heat Transfer
√Industrial Gas
√ Industrial Engineering
√ Mass transfer
√ Materials science
√ Manufacturing Process
√ Mechatronics
√ Metallurgy
√ Microfluidics
√ Marine Engineering
√ Nanotechnology
√ Natural Gas processing
√ Nuclear reprocessing
√ Nuclear Engineering
√ Ocean Engineering
√ Oil Explosion
√ Oil refinery
√ Power Generation
√ Process control
√ Process Design,
√ Production Engineering
√ Renewable Energy
√ Safety Engineering
√ Semiconductor Device fabrication
√ Syngas Production
√ Textile Engineering
√ Thermodynamics
√ Unit operations
বহুল প্রতিক্ষিত চাকরির বাজার নিয়ে যদি শুরু করতে হয় তাহলে সবার আগে BDjobs থেকে, বা পত্রিকা থেকে একতু দেখে আসতে পারো বেশিরভাগ ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরি EEE/ME, ME/IPE, CSE/ME এরকম লেখা থাকে আর by default ME Based চাকরি তো আছেই। ভালো কিছু লুফে নিতে হলে এতটুকু কষ্ট তো করতেই হবে পড়াশোনা করে। আমাদের দেশে ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরি প্রধানত দুই প্রকার
১) সরকারি
২) বেসরকারি
সরকারি চাকরিকে প্রধানত দুই ভাগে ভাগ করা যায়। একটি হচ্ছে বিসিএস ( বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস) অন্য টি বিভিন্ন সরকারি পাওয়ার প্ল্যান্ট অথবা সরকারি মালিকানাধীন কলকারখানা, বা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ যেকোনো প্রতিষ্ঠানের চাকরি। এই চাকরি গুলোতে স্যালারী রেঞ্জ, চাকরি নিরাপত্তা, সামাজিক সম্মান, বেতন ভাতা খুবই উচ্চ পর্যায়ের বিধায় মেকনিকাল ইঞ্জিনিয়ার দের সরকারী চাকরি তে ব্যাপক আগ্রহ পরিলক্ষিত হয়
সরকারি কোম্পানিসমূহঃ-
১. পেট্রোবাংলা এবং এর সাবসিডিয়ারী কোম্পানিসমুহ
২. Bangladesh Chemical Industries Corporation (BCIC)এর সাবসিডিয়ারী কোম্পানিসমুহ
৩. বাংলাদেস পেট্রোলিয়ার কর্পোরেশনের সাবসিডিয়ারী কোম্পানিসমুহ
৪.Bangladesh Power Development Board (BPDB) এর সাবসিডিয়ারী কোম্পানিসমুহ
৫. বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্যশিল্প
৬. Bangladesh Rural Electrification Board (REB)
৭. বিটাক
৮. বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন
৯. বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন
১০. ওয়াসা
১১. Bangladesh Road Transport Authority (BRTA)
১২. বিএসটিআই
১৩. বি এ ডি সি
১৪. BCS (Technical + cadre)
১৫. BAPEX
১৬. Bangladesh Telecommunication Regulatory Commission (BTRC)
১৭. Power Grid Company of Bangladesh Limited (PGCB)
১৮.Bangladesh Rural Electrification Board
১৯.Electricity General Company of Bangladesh (EGCB)
এসব কোম্পানি থেকে প্রতিবছর ই সার্কুলার বের হয়। তাছাড়া আরও কিছু জায়গা তেও মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর চাকরি আছে
২) প্রাইভেট / বেসরকারী চাকরিঃ-
বড় অংকের স্যালারী,চাকচিক্যে ভরপুর অফিস, স্যুটেড-বুট্যেড কর্পোরেট লাইফ কে না চায়। বেসরকারী জব সেক্টর কেও দুই ভাগে ভাগ করা যায়
প্রথমত ব্যক্তিগত মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বা কোনো সংস্থার অধিনস্থ চাকরি। যেমনঃ-
অটোমোবাইল সেক্টরে
* রানা মোটরস
* উত্তরা মোটরস
* এসিআই মোটরস
* নিলয় মোটরস
* আফতাব অটোমোবাইল
* রহিমা আফরোজ গ্লোব্যাট লিমিটেড
তাছারা ফার্মিসিটিউকেল সেক্টর, সিমেন্ট ইন্ডাস্ট্রি, পাওয়ারপ্ল্যান্টেও ব্যাপক মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার নেওয়া হয়
আবার হোম অ্যাপ্লায়েন্স নির্মাতা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানেও মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারদের চাকরির বিরাট ক্ষেত্র রয়েছে
দেশের৷ ১০ টি শীর্ষ ওষুধ কোম্পানিগুলো হলঃ-
১. স্কয়ার
২. ইন্সেপ্টা
৩.বেক্সিমকো
৪. রেনেটা
৫. হেলথকেয়ার
৬. অপ্সোনিন
৭. এসিআই
৮.এস্কেএফ
৯. এরিস্টোফার্মা
১০. একমি
★★★আরও বেশ কিছু চাকুরীর ক্ষেত্রগুলো নিম্নরূপঃ
★পাওয়ারপ্ল্যান্ট (সব ধরণের)
★সিমেন্ট ইন্ড্রাস্টি
★সার কারখানা
★অটোমোবাইল
★জাহাজ নির্মাণ শিল্প
★পেট্রোলিয়াম জাত পণ্য (লুব অয়েল, পেট্রোল, ডিজেল)
★যেকোন ইন্ডাস্ট্রির ইউটিলিটি ও মেইন্টেনেন্স বিভাগে।
★রেলওয়ে
★বিমান
★নবায়নযোগ্য শক্তি
★জেনারেটর/ক্যাপটিভ পাওয়ার
★বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা
★walton Hi Tech industries LTD
★Pran RFL Limited
★OBSIDIAN
★Landmark Bangladesh Limited
★United Summit Summit Coastal Oil
★Bright Green Energy Foundation
★ The Aircons LTD
★E-Cool Resources BD
★ New G boiler LTD
★EMACO Engineering of technology
মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিসমুহ ঃ-
১. কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড
২. সিজেন্টা বাংলাদেশ লিমিটেড
৩. কোটস বাংলাদেশ লিমিটেড
৪. লিনডে বাংলাদেশ
৫. ABB
৬. ব্যুরো ভেরিটাস
৭. নেসলে বাংলাদেশ
৮. ইউনিলিভার
৯. ক্রিশ এনার্জি
১০.লাফার্জ হোলসিম
১১.বার্জার পেইন্ট
১২. রেকিট বেনকিজার
১৩. গোদরেজ
১৪. British American Tobacco Bangladesh
১৫. Chevron Bangladesh
১৬.Unilever Bangladesh Limited সহ অনেক মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি আছে যাদের প্রতিবছর ব্যাপকহারে মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার দের চাকরি নেওয়া হয়
বস্ত্রশিল্প রপ্তানিতে বাংলাদেশ পৃথিবীর শীর্ষস্থানে রয়েছে। অসংখ্য টেক্সটাইল কোম্পানি আছে যেগুলোতে প্রতিবছর কয়েকহাজার Mechanical Engineer নিয়োগ দেওয়া হয়
√ACS Textiles
√DBL Group
√ Noman Group
√ NASSA group
√ Beximco Textile
√ Square Textile
√ Sinha Group
√ Thermax group
√ Viyellatax Group
√ Knit Concern Group
√ Sunman Group
√ Tans Apparels
√ East Bengal International
√ One Tex BD limited
মোটামোটি এসব কোম্পানি ছাড়াও আরও অনেক জায়গায় বড় বড় পজিশনে মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার রা কর্মরত আছেন
তাছাড়া নন ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরেও চাকরি করার সুযোগ আছে। অনেকে ইঞ্জিনিয়ারিং এ গ্র্যাজুয়েশন শেষ করে এমবিএ করে। একটি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রীর সাথে এমবিএর কম্বিনেশনকে চাকরি ক্ষেত্রে অনেক অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। এছাড়া ব্যাংকিং সেক্টরে চাকরির সুযোগ তো আছেই।
তোমার অনেক বন্ধু বান্ধবদের দেখবে আর্মিতে বিএমএ তে লং কোর্সে ৩ বছর থাকে, এদের অনেকে MIST, BUP থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী নেয়। চাইলে তুমিও এই সুযোগ নিতে পার
এজন্য তেমন কিছুইনা মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে তুমি যদি বিএমএ শর্ট কোর্সের প্রিপারেশন নিয়ে চান্স পাও তারপর ৬ মাসেই তুমি আর্মির লেফটেন্যান্ট পদে উত্তীর্ণ হয়ে সমান খ্যাতি অর্জন করতে পারবে। ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার পাশাপাশি মিলিটারি সদস্য হওয়ার গৌরবও অর্জন করতে পারবে।
★★★বাইরের দেশে সুযোগ -
২০০৯ সালের হিসাব মতে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১৬ লক্ষ প্রকৌশলী কর্মরত আছেন। তারমধ্যে প্রায় ২৩৯০০০ (১৫%) যন্ত্রপ্রকৌশলী। পরিসংখ্যান মতে প্রতি দশকে ৬% হারে যন্ত্রপ্রকৌশলীদের কর্মসংস্থান বাড়ছে, যাতে প্রত্যেক স্নাতক ডিগ্রীধারী প্রকৌশলীদের প্রাথমিক বেতন হল প্রতি বছরে ৫৮,৮০০ মার্কিন ডলার । যন্ত্রপ্রকৌশলীদের গড় বেতন প্রতি বছরে ৭৪,০০০ মার্কিন ডলার, যা সর্বোচ্চ প্রতি বছরে ৮৬,০০০ মার্কিন ডলার এবং সর্বনিম্ম ৬৩,০০০ মার্কিন ডলার। জার্মানিতেও মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারদের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।
★কোর্স পরিচিতি
একেক বিশ্ববিদ্যালয়ে একেকরকম সিলেবাস থাকলেও নিম্নোক্ত বিষয়গুলোই সাধারণত পড়ানো হয়।
Mathematics (in particular, calculus, differential equations, and linear algebra)
Basic physical sciences (including physics and chemistry)
Statics and dynamics
Strength of materials and solid mechanics
Materials Engineering,
CompositesThermodynamics, heat transfer, energy conversion, and HVAC
Fuels, combustion, Internal combustion engine
Fluid mechanics (including fluid statics and fluid dynamics)
Mechanism and Machine design (including kinematics and dynamics)
Instrumentation and measurement
Manufacturing engineering, technology, or processes
Vibration, control theory and control engineering
Hydraulics, and pneumatics
Mechatronics, and robotics
Engineering design and product design
Drafting, computer-aided design (CAD) and computer-aided manufacturing(CAM)
★অন্য ফিল্ডে যাওয়ার দক্ষতাঃ-
যান্ত্রিক প্রকৌশল দক্ষতা হস্তান্তরযোগ্য, যার অর্থ তারা বিভিন্ন শিল্প জুড়ে নিজেকে বিভিন্ত ফিল্ডে উপযোগী করা যাবে, প্রচুর জব ফিল্ড সুইচ করারও সুযোফ থাকবে এবং আরও কর্মসংস্থান করতে সাহায্য করে।যান্ত্রিক প্রকৌশলের ডিগ্রিটি তোমাকে বিভিন্ন দক্ষতা প্রদান করবে যার মধ্যে রয়েছে:
সমস্যা সমাধান - প্রকৌশলবিদ্যা হল সমস্যা সমাধান করার আরও ভাল, আরও দক্ষ উপায় খুঁজে বের করা
টিমওয়ার্ক - দলে কাজ করার অর্থ হল তুমি দক্ষতা শেয়ার করতে পারবে এবং দ্রুত এবং আরও শক্তিশালী সমাধান বিকাশ করতে পারবে
উন্নত প্রযুক্তিগত দক্ষতা - যান্ত্রিক প্রকৌশলে বিশেষীকরণের অর্থ হল তুমি যান্ত্রিক প্রকৌশল তত্ত্বের একটি শক্তিশালী জ্ঞান গড়ে তুলবা এবং কীভাবে এটি বাস্তবে প্রয়োগ করা যায়
একাডেমিক লেখা - লিখিত প্রতিবেদনে তোমার অনুসন্ধান এবং ধারণাগুলি একটি আকর্ষক উপায়ে উপস্থাপন করতে সক্ষম হওয়া
সিদ্ধান্ত গ্রহণ - যান্ত্রিক প্রকৌশলীদের ঝুঁকি নিতে ইচ্ছুক হতে হবে এবং চাপের মধ্যে তাদের সিদ্ধান্তে আস্থা রাখতে হবে।
★ ক্যরিয়ার সুযোগঃ-
মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং হল একটি বিস্তৃত ক্ষেত্র, যা মানুষের দৈনন্দিন জীবনে যতটা বেশি প্রভাব ফেলে, আমরা যেই পোশাক পরিধান করি তা তৈরি করা থেকে শুরু করে ফোনে অ্যাপ তৈরি করা পর্যন্ত, ডিগ্রি প্রোগ্রাম চলাকালীন আপনি বিভিন্ন আকর্ষণীয় বিষয় অধ্যয়ন করানো হয় এর মধ্যে থাকতে পারে:
√কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন - কম্পিউটার প্রযুক্তি অবিশ্বাস্য গতিতে বিকশিত হতে থাকে, জীবনের প্রায় প্রতিটি অংশে এর প্রভাব প্রসারিত করে
√গণিত এবং পদার্থবিদ্যা - বিশুদ্ধ গণিত এবং পদার্থবিদ্যায় একটি ভাল ভিত্তি থাকা অত্যাবশ্যক, কারণ সেগুলি সমস্ত প্রকৌশলের ভিত্তি
√বিদ্যুৎ - বিদ্যুতের পিছনের বিজ্ঞান এবং কীভাবে এটি বিশ্বকে আরও পরিবর্তন করতে পারে তা অধ্যয়ন করুন
√ডিজাইন এবং ম্যানুফ্যাকচারিং - কীভাবে ডিজিটালভাবে ডিজাইন আঁকতে হয় এবং উত্পাদন প্রক্রিয়াগুলি কীভাবে কাজ করে তা শিখুন
√রোবোটিক্স এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা - রোবোটিক্সের মেকানিক্স এবং এই তুলনামূলকভাবে নতুন প্রযুক্তির প্রভাব অধ্যয়ন করুন যা বেশ কয়েকটি শিল্প জুড়ে রয়েছে।
★ উচ্চতর গবেষণা
কিভাবে যন্ত্র ও যান্ত্রিক কলাকৌশলসমুহকে মানুষের জন্য অধিক নিরাপদ, ব্যবহার উপযোগী, সুলভ মূল্য ও কার্যক্ষম করা যায় তার জন্য যন্ত্রপ্রকৌশলীরা প্রতিনিয়ত যন্ত্রকৌশলের সীমানা বর্ধিত করে যাচ্ছেন। মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে পরবর্তীতে বিভিন্ন সাব্জেক্টেও সুইচ করা যায়। সেসকল প্রযুক্তি নিয়ে উচ্চতর গবেষণা করা যায় তার কিছু তালিকা
মাইক্রো ইলেক্ট্র-মেকানিকাল সিস্টেমস (MEMS)
ঘর্ষন সক্রিয় ঢালাই (Friction stir welding)
যৌগিক বস্তু (composites)
মেকাট্রনিক্স Mechatronics
ন্যানো প্রযুক্তি ( Nenotechnology)
সসীম উপাদান বিশ্লেষণ (finite element analysis)
ফলিত বলবিদ্যা (applied mechanics)
গননীয় দ্রব গতিবিজ্ঞান (Computational fluid dynamics)
দেশে কিন্তু গণহারে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ান হয় না, পড়াও যায় না। যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ান হয়
★বুয়েট
★কুয়েট
★রুয়েট
★চুয়েট
★শাবিপ্রবি
★হাবিপ্রবি
★MIST
★IUT (মেকানিক্যাল + কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, MCE নামে পরিচিত)
★AUST
★ডুয়েট
বুঝতেই পারছো যেহেতু পড়ানো হয় খুবই গুটিকয়েক জায়গায় মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানো হয়, তাই কর্মক্ষেত্রে প্রতিযোগিতাও খুব কম কেননা একজন যন্ত্রকৌশল ছাত্রের পেছনে প্রচুর টাকা ঢালতে হয়। সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানোর মতো রিসোর্স, ইকুইপমেন্ট, বাজেট, রিসার্চ ডেভেলপমেন্ট প্রভৃতি সম্পন্ন করা বেশ দুঃসাধ্য হয়ে পড়ে, তাই গণহারে কিছু কমন সাব্জক্টের মতো সব জায়গায় মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানোর মতো সুযোগ ও হয়না। একেকটা ওয়ার্কশপের দুই,তিনটা মেশিনের দাম যত টাকা তা দিয়ে কতিপয় ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের গোটা ল্যাব কিনা সম্ভব। এখন আবার ভেবোনা তোমাকে এসব অর্থ ব্যয় করতে হবে😂
সরকারই তোমার পড়াশোনার ব্যয়-ভার বহন করবে। নিঃসন্দেহে যন্ত্রকৌশল বিষয়টি Most Expensive Engineering সাব্জেক্টের তকমা নিয়ে নেয়। তুমি খুবই সৌভাগ্যবান যে যন্ত্রকৌশলের মতো expensive সাব্জেক্ট তুমি সরকারী ভার্সিটি তে এভাবে খরচ ছাড়াই পড়তে পারবে
সো আর কি কোনো ডাউট আছে?😇
পৃথিবীর প্রথম পেসমেকার যখন বানানো হয়, তখন সেই টীমে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারও ছিলো পেসমেকারের ম্যাটারিয়াল প্রপার্টি, পালস, ইফোর্ট – এগুলা এ্যানালাইসিস করার জন্য। তাইলে বোঝো ঠেল্যা, তবে এইগুলো তো আর একদিনে পড়বা না। ৪ বছর ধরে পড়বা। আর, অনেক টপিক পড়ানো হয় দেখে উচ্চ শিক্ষার সুযোগও মেকানিক্যালে বেশি।
যদি তুমি ছোটো বেলায় রিমোট কন্ট্রোল গাড়ির ব্যপারে আগ্রহ থাকতো,রোবোট বানাতে ইচ্ছা জাগত, বা স্কুলের বিজ্ঞান মেলায় কতরকম প্রজেক্ট উপস্থাপন করতা, এসব বিষয়ে বিস্তারিত জানার আগ্রহ থাকত, বা ডিসকভারি চ্যানেলে রকেট, নাসা, বিভিন্ন কৃত্রিম উপগ্রহ, স্পেসশিপ বা অনেক টেকনোলজিক্যাল বিষয়ে ভবিষ্যতে যাওয়ার তুমোল আগ্রহ থাকে তাহলে একদম চোখ বন্ধ করে মেকানিকাল ফার্স্ট চয়েজ দাও
অনেকে মজা করে একে “যন্ত্রনা”কৌশলও বলে থাকে এটার পক্ষে যুক্তি হলো “ভালো জিনিস অর্জন সহজসাধ্য নয়”। কোন ইঞ্জিনিয়ারিং ই সোজা না। শুধু শুধু মেকানিক্যাল কে দোষ দিয়ে লাভ আছে? তবে এটা ঠিক মেকানিক্যালে অনেক বেশি টপিক পড়তে হয়, অন্যদের তুলনায় একটু বেশি চিন্তা ভাবনা মাথার ভেতর রাখতে হয়। ১২ বছর পড়াশোনা করার পর যারা এই পর্যন্ত আসছ, তাদের জন্য এইটুকু করা কঠিন কিছু না 😇
যদি তুমি ফিজিক্স ভালোবাসো, যদি প্র্যাক্টিকাল ওয়ার্কে তোমার বেশি মজা লাগে, যদি মেকানিক্যাল রিলেটেড কোন সেক্টরে তোমার একটু হলেও ইন্টারেস্ট থাকে, তাহলে তোমার জন্য আমার পরামর্শ – মেকানিক্যাল পড়। তবে মেকানিক্যালে নিজেকে মানিয়ে নেয়া অনেক বড় একটা ফ্যাক্টর। প্যাশন সব ইঞ্জিনিয়ারিং বিশেষ করে মেকানিক্যালের জন্য অনেক বড় একটা ফ্যাক্টর।মেকানিকাল পড়তে হলে সবার আগে নিজেকে মন থেকে প্যাশনেট হয়ে আসতে হবে তবেই যন্ত্রকৌশলের মন্ত্রমুগ্ধ দুনিয়ায় নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারবে।
শুভ কামনা
রইল
শুভেচ্ছাদান্তে
রিফাত জামান
মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং
চুয়েট-১৯

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad

বিশেষ ছাড়ে ডিজিটাল প্রোডাক্ট কিনতে এখানে ক্লিক করুন!!

Shemanto Sharkar